টিকটকার “অপু ভাই ” পুলিশের হাতে আটক

ঘটনাটা ঘটলো উত্তরা ৮ নাম্বার সেক্টর পাবলিক কলেজের সামনে। প্রকৌশলী মেহেদি হাসান রবিন তার নিজের গাড়ি চালিয়ে যাচ্ছিল, সাথে ২-৩ বন্ধুও ছিল। রাস্তা অবরোধ করে কথিত ‘অপু ভাই’য়ের গ্রুপ উচ্ছৃঙ্খলতা করছিল কলেজের সামনে। রবিন রাস্তা আটকানো দেখে হর্ণ বাজায়। হর্ণ বাজানোর পর উচ্ছৃঙ্খল ছেলেগুলো স্লেজিং করতে থাকে, অশালিন কথা বলতে থাকে। রবিন আর তার বন্ধুরা গাড়ি থেকে নেমে গাড়ি যাওয়ার জন্য সাইড দিতে বলে। এতে টিকটকার অপু এবং তার গ্রুপ এলোপাথাড়ি গায়ে হাত তুলে তাদের শক্তি প্রদর্শন করে। এতে করে রবিন এবং বাকি দুইজন গুরুতর আহত হয়। টিকটকার অপু সেই সময় রাস্তায় ভাষণ দিচ্ছিল ৫০-৬০ টা ছেলেপেলের সামনে, তারা রাস্তা ছাড়বে না। কেন ‘অপু ভাই’য়ের ভাষণে ডিস্টার্ব করলো! পুরা দেশ নাকি ‘অপু ভাই চালায়!

এই ঠুনকো কারণে অপু ও তার গ্রুপ পশুসুলভ হয়ে উঠে।পরে গাড়ি চালক মেহেদী হাসান রবিনের অভিযোগের প্রেক্ষিতে উত্তরা থানা পুলিশ টিক টকার অপু ভাই কে আটক করে।

- Advertisement -

উল্লেখ্য যে, এই সময়ে কিশোর ও তরুণদের জনপ্রিয় মোবাইল এ্যাপ টিকটকে, অপুর বেশ কিছু ভিডিও ভাইরাল হয় নেতিবাচক কারনে।

আপনার মতামত দিন