দেওয়ানগঞ্জে নির্বাচনী সহিংসতা: নিহত ১, আহত ৫

জামালপুর জেলার দেওয়ানগঞ্জ উপজেলা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে দুই প্রার্থীর ব্যাপক প্রচারনা শুরু হয়। দুই জন প্রার্থীই নির্বাচনে বিজয় লাভের আসায় ভোটারদের দ্বারে দ্বারে ভোট প্রার্থনা করেন।

উপজেলা নির্বাচনকে ঘিরে ভোটারদের মাঝে সৃষ্টি হয় নির্বাচনী আমেজ। নির্বাচনের বাকি মাত্র আর কয়েকটা দিন। তার পরেই ঠিক হবেন কে হচ্ছেন উপজেলা চেয়ারম্যান। এই সব প্রচার প্রচারনার মাঝেই গতকাল বুধবার রাত ১১ঃ০০ টা (আনুমানিক) সময় চুকাইবাড়ী ইউপি কার্যালয়ের সামনে কে বা কাহারা বেশ কিছু গুলি-ককটেল বিস্ফোরন ঘটায়। বিস্ফোরনের শব্দ আশে-পাশে থাকা বাড়ীর লোকজন শুনতে পায় এবং ভীত হয়ে তারা বাড়ী থেকে বের হতে সাহস পায়নি।

- Advertisement -

এ সময় বিস্ফোরনে আঃ খালেক (৪৬) নামের একজন নিহত হন। তার সাথে আরো ৫ জন আহত হয়েছেন বলে জানা গেছে। নিহত আঃ খালেকের বাড়ী দেওয়ানগঞ্জ সরকারি কলেজের পাশে বলে জানা গেছে। তিনি একসময় আওয়ামী লীগের রাজনীতির সাথে সক্রিয়ভাবে জড়িত ছিলেন বলে জানা যায়। এখন তিনি রাজনীতির থেকে বেশ দূরেই ছিলেন।

এই বিষয়ে কয়েক জন প্রত্যক্ষদর্শীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, রাত ১১ঃ০০ টার দিকে হঠাৎ ইউনিয়ন পরিষদের সামনে শব্দ শুরু হয়। আমরা প্রথমে ভেবেছিলাম হয়তো কোন গাড়ীর চাকা ফেটে গেছে। তাই বেশী গুরুত্ব দেইনি। তার কিছুক্ষন পর আবার কিছু বিস্ফোরনের শব্দ শুনতে পেলে আমরা ভয়ে আর সেই দিকে না গিয়ে অন্য দিকে চলে যাই। পরে গিয়ে দেখি আঃ খালেক নামের একজন পরে আছেন। পরে থানায় খরব দেওয়া হয়। প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে উপজেলা নির্বাচনের কারণে এই সহিংসতার ঘটিয়েছে।

তারা আরো বলেন, রাতে দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় পরিষদ নির্বাচনের প্রচারণাকে কেন্দ্র করে আওয়ামী লীগের মনোনীত চেয়ারম্যান প্রার্থী আবুল কালাম আজাদের সমর্থকদের সঙ্গে আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী চেয়ারম্যান প্রার্থীর সোলাইমানের সমর্থকদের সংঘর্ষ হয়। এ সময় গুলিবিদ্ধ হন সোলাইমানের ভায়রা ভাই খালেক। পরে স্থানীয়রা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে হাসপাতালে নেওয়ার পথে তিনি মারা যান।

দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ওসি এ.কে.এম আমিনুল হক নিহতের বিষয়টি দেওয়ানগঞ্জ নিউজকে নিশ্চিত করে বলেন কে বা কাহারা এই ঘটনা ঘটিয়েছেন। আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখছি। তবে অপরাধী যেই হোক দ্রুত সময়ের মধ্যেই তাদের খুঁজে বের করে গ্রেফতার করা হবে।

উল্লেখ্য যে, নিহত আঃখালেক আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী মোঃ সোলায়মান হোসেন সোলাই-এর ভাইরা।

আপনার মতামত দিন
- Advertisement -